বিজ্ঞপ্তি:
আমাদের ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম:
গলাচিপায় পাবলিক পরীক্ষা কেন্দ্রসমূহে প্লাষ্টিকের বেঞ্চ বিতরণ গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগের নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা লেবুখালী সেতুটি শহীদ আলাউদ্দিন সেতু নাম করনের দাবীতে কলাপাড়ায় মানববন্ধন ও সমাবেশ।। গলাচিপায় স্কুলের মাঠে গরুর হাট কলাপাড়ায় যৌন হয়রানি প্রতিরোধ কমিটি’র দুইদিন ব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্রের দ্বার খুলছে কাল, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে পর্যটন নির্ভর ব্যবসায়ীরা কলাপাড়ায় গ্রাম পুলিশদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ । করোনার সংকটময় মুহূর্তে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছে “কলাপাড়া উপজেলা সমিতি,ঢাকা পিরোজপুরে নতুন এসপি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সাইদুর রহমান পিরোজপুরে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তার নগদ অর্থ পেলে ৬৭৫ টি পরিবার
আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট
সাংবাদিকতা, সংগঠন এবং কিছু কথা

সাংবাদিকতা, সংগঠন এবং কিছু কথা

 

।। তাইফুর সরোয়ার।।

সংবাদিকতা একটি মহৎ পেশা। নানা প্রতিকূল পরিবেশে এমন কি মৃত্যু ঝুঁকিতে থেকেও সাংবাদিকরা জনসাধারণের সামনে তুলে ধরেন “সত্য”কে। জাতীয় পর্যায়ের গণমাধ্যমেগুলোতে সাংবাদিকতার যথেষ্ট নিয়ম নীতি মানা হলেও মফস্বল সাংবাদিকতায় বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এড়িয়ে যাওয়া হয় এই সকল নিয়ম কানুন। অধিকাংশ মফস্বল সাংবাদিকদের নেই সাংবাদিকতার কোন প্রশিক্ষণ। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মফস্বল সাংবাদিকতা চলছে “কপি এন্ড পেস্ট” স্টাইলে। বেশিরভাগ মফস্বল সাংবাদিকদের মাসিক বেতন বা সম্মানীর ব্যবস্থা না থাকায় কিছু সাংবাদিক সাংবাদিকতার কার্ডকে পূঁজি করে বিভিন্ন পক্ষের কাছ থেকে অবৈধ সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করে। এই সব কারণে গ্রহণ যোগ্যতার দিক দিয়ে মফস্বল সাংবাদিকতা মূল ধারার সাংবাদিকতা থেকে কিছুটা হলেও পিছিয়ে আছে।

ইদানিং সোস্যাল মিডিয়ায় সাংবাদিকদের বিভিন্ন অনলাইন ভিত্তিক সংগঠনের আত্নপ্রকাশ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। নিঃসন্দেহে এটি একটি ভালো উদ্যোগ। কিন্তু খারাপটা তথনই, যখন দেখা যায়- সকালে সংগঠনের জন্ম হয়, আর দুপুর না গড়াতেই সেই সংগঠনের কোন গুরুত্বপূর্ণ পদধারী নিজেকে সংগঠন থেকে প্রত্যাতার করে নেয় বা সংগঠনের সাথে তার কোন সম্পর্ক নেই বলে সোস্যাল মিডিয়ায় জানিয়ে দেয়। অর্থাৎ সবটাই হচ্ছে একের সাথে অন্যের কোন যোগাযোগ ছাড়াই। এই সংগঠনগুলো অনলাইনেই থাকে, অফলাইনে এদের উপস্থিতি বা কার্যক্রম তেমন একটা চোখে পরে না। সাংবাদিকতার উন্নয়ন বা সাংবাদিকদের স্বার্থ রক্ষার চেয়ে এরা নিজেদের প্রচার করতেই বেশি ব্যস্ত থাকে।

সাংবাদিকদের নামসর্বস্ব বিভিন্ন ভুঁইফোঁড় সংগঠন না করে, জেলা ভিত্তিক সকলকে নিয়ে একটি কার্যকর সংগঠন গঠন করা হলে সেটা সবচেয়ে ফলপ্রসু হবে বলে আশা করছি। এই লক্ষ্যে জেলার প্রবীন ও অভিজ্ঞ সাংবাদিকদের নিয়ে একটি আহবায়ক কমিটি করা যেতে পারে। সেই কমিটি পরবর্তীতে সকল সাংবাদিকদের সাথে আলাপ আলোচনা করে, তাদের পছন্দের ভিত্তিতে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করবে। এই কমিটি একটি নীতিমালা তৈরি করবে, যা জেলার সকল প্রিন্ট ও অনলাইন নিউজ পেপারগুলো বাধ্যতামুলকভাবে অনুসরণ করবে। এই কমিটিই নির্দিষ্ট করে দিবে সাংবাদিকতা করার নূন্যতম বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতা। শিক্ষানবিশ সাংবাদিকদের জন্য এই কমিটি প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে। সাংবাদিকদের সম্মানীর বিষয়টি নিয়েও এই কমিটি কাজ করবে। দায়িত্বপালন কালে কোন সাংবাদিক হেনস্তা ও নির্যাতনের শিকার হলে এই কমিটি সেই সাংবাদিকের পাশে দাঁড়াবে।

মফস্বল সাংবাদিকতার মান উন্নয়নে এবং পেশাদার সাংবাদিক তৈরি করতে প্রবীন ও অভিজ্ঞ সাংবাদিকদের নিয়ে একটি নিরপেক্ষ প্লাটফর্ম চালু করা সময়ের দাবী। আশা করি সাংবাদিকতার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলে এগিয়ে এসে “মফস্বল সাংবাদিকতা”কে একটি সুন্দর ও সর্বজন গ্রহণযোগ্য প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিবেন।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

banner728x90

banner728x90




১৯৬১ সালের স্বেচ্ছামূলক সমাজকল্যাণ প্রতিষ্ঠান অধ্যাদেশ নম্বর ৪৬ এর ৪ (৩) ধারার অধীনে নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান রুরাল ইনহ্যন্সমেন্ট অর্গানাইজেশন( রিও) নিবন্ধন নং -সসেঅদ/ পটুয়া/ ৬৬৩ এর উন্নয়ন প্রকাশনা
কারিগরি সহায়তা: Next Tech